ভারতীয় এই ১৪ জন অভিনেত্রী, যারা বাস্তব জীবনেও মা-মেয়ে

0
143

চলচ্চিত্র বা টিভি শিল্পে অনেক পরিবার দেখা যায়, যাদের প্রায় সবাই একই ক্ষেত্রে সক্রিয়। বচ্চন পরিবার, কাপুর পরিবারের সদস্যরা অভিনয়ে নিয়োজিত, তারপর জহর ও চোপড়া পরিবারের লোকেরা প্রোডাকশন নিয়ে কাজ করছে। টিভি শিল্পের হালও সিনেমারই মতন ।

অমিতাভ বচ্চন-অভিষেক বচ্চন, পঙ্কজ কাপুর-শাহিদ কপুর এবং ঋষি কাপুর-রণবীর কাপুর কে বিনোদন শিল্পের বাবা-ছেলের জুটি সম্পর্কতো দেখেছেন । এই পিতা-পুত্রের জুটির মতো, অনেক মা-কন্যার জুটি সুপরিচিত অভিনেত্রীও রয়েছেন। আপনি বড় পর্দার মা-কন্যার কিছু জুটির সম্পর্কে জানেনই । কিন্তু ছোট পর্দা সম্পর্কে কথা বললে, আপনি এখানেও জুটির সম্পর্কে জেনে বিস্মিত হবেন। তাহলে আবার দেরী কিসের ? আসুন পুরো ব্যাপারটা জানি ।

শর্মিলা ঠাকুর – সোহা আলী খান

সিনিয়র অভিনেত্রী শর্মিলা ঠাকুর এক সময়ে নেতৃস্থানীয় অভিনেত্রী ছিলেন । তিনি ‘অমর প্রেম’, ‘আরাধনা’ এবং ‘দাগ’ এর মতো স্মরণীয় চলচ্চিত্রে কাজ করেছেন। তার কন্যা সোহা আলী খানও ‘রং দে বাসন্তী’ এবং ‘তুম মিলে’ এর মত চলচ্চিত্রে অভিনয় করেছেন।

সুপ্রিয়া পিলগাঁকার – শ্রীয়া পিলগাঁকার

সুপ্রিয়া সুপরিচিত অভিনেতা শচীন পিলগাঁওকারের স্ত্রীও দীর্ঘদিন ধরে মারাঠি চলচ্চিত্রে অভিনয় করছেন। সুপ্রিয়া অনেক জনপ্রিয় হিন্দি টিভি শোগুলির একটি অংশও ছিলেন । তার মেয়ে শ্রীয়া শিশু বয়স থেকে অভিনয় করছেন।

রিমা লাগু – মৃন্ময়ী লাগু

দিগ্গজ অভিনেত্রী রিমা লাগু বিভিন্ন অভিনেতার মা এর ভূমিকায় অভিনয় করেছেন । তিনি সবার প্রিয় মা ছিলেন । কিন্তু খুব কম লোক জানে যে তার মেয়ে মৃন্ময়ী একজন অভিনেত্রী এবং থিয়েটার পরিচালক।

মুনমুন সেন – রিয়া সেন – রাইমা সেন

মুনমুন সেন হিন্দি, বাংলা এবং অন্যান্য আঞ্চলিক চলচ্চিত্রে কাজ করেছেন । অভিনেতা হিসেবে তার দুই মেয়ে রিয়া এবং রাইমা সেনও সক্রিয় আছেন।

হেমা মালিনী – ইশা দেওল

ড্রিম গার্ল হেমা মালিনী এখন অভিনয় থেকে রাজনীতিতে চলে গেছেন । তার মেয়ে ঈশা দেওল বিয়ের পর চলচ্চিত্র থেকে দূরে চলে গেছেন ।

সুপ্রিয়া শুক্লা – ঝনক শুক্লা

কুমকুম ভাগ্যে, প্রজ্ঞার মা সরলা রঘুবীর অরোরার মা কে মনে তো আছেই । এই চরিত্রে অভিনয়কারী সুপ্রিয়া কিছু ছবিতে কাজ করেছেন। তার কন্যা ঝনক ‘কাল হো না হো’ তে ‘জিয়া’ র ভূমিকাতে অভিনয় করেছেন । ‘কারিশমা কা কারিশমা’ এর কারিশমাও ঝনকই ছিল।

পুনাম ধিলন – পলোমা ধিলন

৭০-এর দশকের মাঝামাঝি সময়ে প্রায় ৮০ টি চলচ্চিত্রে অভিনয় করেন পুনম ধিলন। ২০০৯ সালে তিনি বিগ বসের বাড়িতেও নজরে এসেছিলেন। তার কন্যা পলোমাও খুব শীঘ্রই অভিনেত্রী হিসেবে কাজ করতে যাচ্ছে।

সারিকা হাসান – শ্রুতি হাসান – অক্ষরা হাসান

অভিনেত্রী সারিকা একটি শিশু অভিনেত্রী হিসাবে অভিনয় শুরু করেন । তিনি শেষবারের মতো ‘বারবার দেখো’ ছবিতে অভিনয় করেছিলেন। আপনি তার দুই কন্যা শ্রুতি হাসান এবং অক্ষর হাসান কে তো জানেনই ।

ডিম্পল কাপাডিয়া – টুইঙ্কাল কাপাডিয়া

বলিউডের সবচেয়ে বিখ্যাত মা-কন্যা জুটির মধ্যে একটি । কন্যা টুইঙ্কল অভিনয় থেকে দূরত্ব তৈরি করেছেন কিন্তু মা ডিম্পল এখনও বোল্ড চরিত্র করতে দেখা যায়।

সুইটি ওয়ালিয়া – রশনি ওয়ালিয়া

ইয়ে হে মহব্বাতেঁ’ এবং ‘বাহু হামারি রজনীকান্ত’ এর মত ধারাবাহিককে মিষ্টি ওয়ালিয়া কে দেখা গেছে । তার কন্যা রশনিও ‘ভারত কা বীর পুত্র – মহারাণ প্রতাপ’এর অংশ ছিল।

সারিতা জোশি – কেতকী দেব – পূরবী জোসী

‘বা বাহু অর বেবি’ তে বা এর চরিত্রে সারিতা জোশি অভিনয় করেছিলেন। তার কন্যা কেতকী দেব ‘কিউকি সাস ভি কাভি বহু থি’ তে অভিনয় করেছেন। পূরবী জোশিও অনেক কমেডি শো এর অংশ ছিলেন ।

কুলবীর চান্না – এহসাস চান্না

এহসাস চান্না ‘কভি অলবিদা না কহেনা’, ‘মাই ফ্রেন্ড গণেশা’ এবং ‘ফুঁক’ এর মতন চলচ্চিত্রে একটি শিশু শিল্পী হিসাবে কাজ কলেছিল। এহসাসের মা একটি সুপরিচিত অভিনেত্রী ।

তানুজা – কাজোল – তানিষা

কজোলের মা অভিনেত্রী তানুজা ‘জুয়েল থিফ’ এবং ‘অনুভব’ চলচ্চিত্রের অংশ ছিল। আপনি কজোল সম্পর্কে জানেনই। তানিষা কিছু কিছু চলচ্চিত্র ও রিয়ালিটি শোতেও অংশ নিয়েছিলেন ।

কিরণ ভার্গভ – অঙ্কিতা ভার্গভ

টিভি অভিনেত্রী অঙ্কিতা ভার্গভ টিভি অভিনেতা করণ প্যাটেলের স্ত্রী । অঙ্কিতার মা কিরণ ‘ভাগ্যবিধাতা’ এর মতো একটি টিভি অনুষ্ঠানেরও অংশ ছিলেন ।

অমরদীপ ঝা – শ্রেয়া ঝা

অমরদীপ ঝা ‘বিদায়াই’ এবং ‘ইশক কা রঙ সফেদ’ এর মত অনুষ্ঠানের অংশ ছিল । তাকে চলচ্চিত্রেও দেখা গেছে । তার মেয়ে শ্রেয়া ঝা বর্তমানে তেলেগু, ওড়িয়া এবং বাংলা চলচ্চিত্রে কাজ করে।

source:dhakanewsbd.net

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here